বাংলাদেশ

হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিল জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা হয়েছে

মোঃ রুহুল আমীন নিজস্ব প্রতিনিধি, জাতীয় সংসদে উত্থাপন হয়েছে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিল। শীঘ্রই বিলটি পাশ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এতে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ। হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলায় চালু হচ্ছে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। বানিয়াচং নাগুরা-ফার্ম ধান গবেষণা কেন্দ্রে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্হাপনে অনুমোদন দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ খবর প্রকাশ পাওয়ায় বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন হবিগঞ্জ জেলাবাসী। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রীপরিষদের বৈঠকে অনুমোদন দেওয়া হয়, হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের। জনপ্রশাসন মন্ত্রী পরিষদের অতিরিক্ত সচিব হামিদা বেগম বলেন, হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০১৯-এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন। প্রাথমিকভাবে কৃষি অনুষদ, মৎস্য অনুষদ, এবং পশু চিকিৎসা ও প্রাণিসম্পদ বিজ্ঞান অনুষদ এই তিনটি নিয়ে চালু হচ্ছে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

মঙ্গলবার শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জাতীয় সংসদে বিল উত্থাপনের অনুমতি প্রার্থনা করেন। অনুমতি মঞ্জুর হলে কৃষি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অগ্রসর বিশ্বের সহিত সংগতি রক্ষা এবং সমতা অর্জনের লক্ষ্যে তা উত্থাপন করেন শিক্ষামন্ত্রী।

সংসদে কণ্ঠভোটে পরীক্ষাপূর্বক রিপোর্ট প্রদানের জন্য হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিলটি শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে প্রেরিত হয়েছে। স্থায়ী কমিটির পরীক্ষাপূর্বক রিপোর্ট সংসদে উত্থাপিত হলে বিলটি পাশ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গত ২৩ ডিসেম্বর মন্ত্রীসভার বৈঠকে নীতিগত সম্মতির পরিপ্রেক্ষিতে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০১৯ এর চূড়ান্ত অনুমোদন হয়।

২০১৪ সালের ২৯ নভেম্বর হবিগঞ্জ নিউফিল্ডে এক জনসভায় জেলাবাসীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট তিনটি দাবি উপস্থাপন করেছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আবু জাহির এমপি। এগুলো হলো, হবিগঞ্জে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠা, শায়েস্তাগঞ্জকে উপজেলা বাস্তবায়ন এবং বাল্লা স্থলবন্দর। ইতোমধ্যে বাস্তবায়ন হয়েছে ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ’। উপজেলা হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে শায়েস্তাগঞ্জ। চলমান রয়েছে বাল্লা স্থলবন্দরের কাজও। এখন শুধু হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় দৃশ্যমান হলেই পুরণ হবে প্রধানমন্ত্রীর এই চার প্রতিশ্রুতি।

Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close