ভ্রমণ

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

সিলেট ভ্রমণ – সিলেটে চা বাগান, জাফলং ছাড়া আর কী দেখার আছে?

প্রথমেই বলে নিই, সিলেট বলতে আমরা সিলেট বিভাগের চার জেলা- সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জকে বোঝে থাকি। নয়নাভিরাম সৌন্দর্যের লীলাভূমি সিলেটের এই চার জেলায় চা বাগান এবং জাফলং ছাড়াও রয়েছে অসংখ্য দর্শনীয় স্থান। আমি এখানে প্রধান প্রধান দর্শনীয় স্থানগুলোর নাম ও অবস্থান ছবিসহ তোলে ধরার চেষ্টা করছি।

সিলেট জেলা:

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১। বিছনাকান্দি (Bisnakandi): সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার রুস্তমপুর ইউনিয়নে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

২। রাতারগুল সোয়াম্প ফরেস্ট (Ratargul Swamp Forest): সিলেট জেলা শহর থেকে প্রায় ২৬ কিলোমিটার দূরে গোয়াইনঘাট উপজেলায় অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৩। লালাখাল (Lalakhal) ও জৈন্তাপুর রাজবাড়ি: সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলায় অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৪। ড্রিমল্যান্ড অ্যামিউজম্যান্ট অ্যান্ড ওয়াটার পার্ক (Dreamland Amusement and Water Park): সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলায় হিলালপুর গ্রামে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৫। নাজিমগড় গার্ডেন রিসোর্ট (Nazimgarh Garden Resort): সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগরের পাহাড়ের কোলে প্রায় ৬ একর জমির উপর অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৬। এক্সেলসিয়র সিলেট হোটেল এন্ড রিসোর্ট: সিলেট শহর থেকে নয় কিলোমিটার দূরে খাদিমপাড়ায় তিনটি টিলার সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে এটি। প্রায় ১৭ একরের এই হলিডে রিসোর্টে রয়েছে থ্রিস্টার মোটেল, শিশুপার্ক, অডিটোরিয়াম, মিনি চিড়িয়াখানা ইত্যাদি।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৭। হযরত শাহজালাল র.-এর মাজার: সিলেট শহরে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৮। লোভাছড়া: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার উত্তর-পূর্ব সীমান্ত ঘেঁষা খাসিয়া-জৈন্তা পাহাড়ের পাদদেশে স্বচ্ছ পানির নদী হচ্ছে লোভাছড়া।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৯। তামাবিল: সিলেট শহর হতে ৫৫ কিলোমিটার দূরে সিলেট-শিলং সড়কের পাশে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১০। ডিবির হাওড় (Dibir Haor): সিলেটের জৈন্তাপুরে বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত ঘেঁষা পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১১। হাকালুকি হাওড় (Hakaluki Haor): সিলেট ও মৌলভীবাজারের ৫টি উপজেলা নিয়ে বিস্তৃত বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ মিঠা পানির জলাভূমি।

.

মৌলভীবাজার জেলা:

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১। লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান: একটি সংরক্ষিত বনাঞ্চল। সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল (আংশিক) উপজেলায় এই উদ্যানটি অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

২। মাধবকুন্ড জলপ্রপাত (Madhabkunda Waterfall): মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলায় অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৩। হামহাম জলপ্রপাত: মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার রাজকান্দি সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গভীরে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৪। মাধবপুর লেইক (Madhabpur Lake): মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৫। দুসাই রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা (DuSai Resort & Spa):

World Luxury Hotel Awards প্রাপ্ত দুসাই রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা এর অবস্থান মৌলভীবাজার জেলার গিয়াসনগরে।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৬। গ্র্যান্ড সুলতান টি রিসোর্ট এন্ড গলফ: পাঁচ তারকা মানের এই রিসোর্টটি মৌলভীবাজার জেলের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় অবস্থিত।

.

সুনামগঞ্জ জেলা:

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১। নীলাদ্রি লেইক (Niladri Lake): চুনাপাথরের পরিত্যাক্ত খনির লেইক যা বাংলাদেশের কাশ্মীর নামে পরিচিত। সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের টেকেরঘাট নামক গ্রামে নীলাদ্রি লেইকের অবস্থান।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

২। বারেক টিলা (Barek Tila): সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলায় বাংলাদেশ ভারত সীমান্তে অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৩। যাদুকাটা নদী (Jadukata River): সুনামগঞ্জ জেলায় বাংলাদেশ ভারতের উত্তর পূর্ব সীমান্তের কোল ঘেষে বয়ে চলেছে।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৪। শিমুল বাগান (Shimul Bagan): সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীর নিকটবর্তী মানিগাঁও গ্রামে প্রায় ১০০ বিঘারও বেশি জায়গা জুড়ে গড়ে তোলা এক শিমুল গাছের বাগান।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৫। টাঙ্গুয়ার হাওড় (Tanguar Haor): সুনামগঞ্জ জেলার প্রায় ১০০ বর্গকিলোমিটার পর্যন্ত বিস্তৃত দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মিঠাপানির জলাভূমি।

.

হবিগঞ্জ জেলা:

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

১। সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান: ২০০৫ সালে প্রায় ২৪৩ হেক্টর জায়গা নিয়ে সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় রঘুনন্দন পাহাড়ে এই উদ্যানটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

২। দ্যা প্যালেস লাক্সারি রিসোর্ট (The Palace Luxury Resort): হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী পাহাড়ে ৫ তারকা মানের দ্যা প্যালেস রিসোর্ট অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৩। রেমা-কালেঙ্গা বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য: সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলায় অবস্থিত।

.

কেন সিলেট জীবনে একবার হলেও ভ্রমণে আসা উচিত? সিলেট ভ্রমণ

৪। গ্রীনল্যান্ড পার্ক: হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার রানীগাঁও এ অবস্থিত।

.

আশা করি মোটামোটি ধারণা দিতে পেরেছি। যেকোনও স্থান সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে গুগল তো আছেই!

সিলেটে আপনাকে স্বাগত! ভ্রমণ শুভ হোক।

(ছবিগুলো ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।)

Tags
Show More
Back to top button
Close
Close