বাংলাদেশ

লক্ষ্মীপুর সদরে দিনে দুপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ অতঃপর হত্যা

আব্দুল কাইয়ুমঃ দিনে-দুপুরে বাসায় ঢুকে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ অতঃপর হত্যা করা হয়েছে।লক্ষ্মীপুর সদরের ২ নং দক্ষিণ হামছাদী ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম গোপীনাথপুর গ্রামের আজিম উদ্দিন পাটোয়ারী বাড়ির মোঃ হারুনুর রশিদের মেয়ে ও পালেরহাট পাবলিক হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী হিরা মনি।নিহত হিরা মনির বাবা হারুনুর রশিদ অসুস্থ্য জনিত অবস্থায় ঢাকায় হাসপাতালে ভর্তি থাকায় তার মা সহকারে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা সবাই ঢাকায় অবস্থান করছিলেন। এমতাবস্থায় নিহত হিরা মনি একই গ্রামে তার নানা বাড়িতে অবস্থান করছিলেন, হিরা মনি তার অসুস্থ্য বাবাকে দেখতে ঢাকায় যাওয়ার জন্য সকালে নানা বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি আসলেন জামা কাপড় নিতে, নানা বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে আসলে দুপুরের দিকে ধর্ষণকারীরা বাড়িতে ঘরের ভিতরের একা পেয়ে তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করে চলে যায়। পরবর্তীতে দুপুরের খাবার খেতে নানার বাড়িতে ফেরত না যাওয়ায় তার নানী ওই বাড়িতে এসে হিরা মনিকে তাদের ঘরে বিবস্ত্র অবস্থায় এবং মৃত পড়ে থাকতে দেখেন। এসময় নিহত হিরা মনির নানি চিৎকার শুরু করে তার চিৎকারে আশে পাশের লোকজন এসে পুলিশকে খবর দেয়। পরে খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।


নিহত হিরা মনির মামা শাহজাহান সাহেব পুলিশকে বলেন, হিরা মনি আমাদের বাড়িতে ছিলো আমিবসকালে তাকে পালেরহাট নামিয়ে দিয়ে যাই। বিকেলে এমন ঘটনা শুনতে হবে তা আমি কল্পনাও করিনি তিনি আরো বলেন যারা আমার ভাগ্নির এমন অবস্থা করেছে তাদের গ্রেফতার করে বিচারের দাবি জানাই। এদিকে পালেরহাট পাবলিক হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেন খান জানান, হিরা মনি মেধাবী ছাত্রী ছিল, যারা তাকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছে, সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে তাদেরকে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। এদিকে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী এবং তারা হিরা মনির হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে জড়িতদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি জানান। লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি (তদন্তের দায়িত্বে যিনি আছেন) মোসলেহ উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার ও আলামত জব্দ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের খুঁজে বের করে গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close