আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্টে অভিবাসনে সাময়িক স্থগিতাদেশ ট্রাম্পের

অনলাইন ডেস্ক ঃ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্টের ডোনাল্ড ট্রাম্প সাময়িক ভাবে যুক্তরাষ্টের অভিবাসন স্থগিত করা হয়েছে। এক টুইট বার্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন,
অদৃশ্য শত্রুর থেকে আক্রমণ এবং আমাদের গ্রেট আমেরিকান নাগরিকদের কাজ রক্ষার প্রয়োজনীয়তার আলোকে আমি সাময়িকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসন স্থগিত করার জন্য একটি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করব। তবে কতদিন এই স্থগিতাদেশ থাকবে এবং কোনদিন থেকে এই আদেশ কার্যকর হবে সেটি জানাননি তিনি।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে অপরিশোধিত তেলের দাম প্রথমবারের মতো শূন্যে নেমে এসেছে। সোমবার বাজার দামে ছিল মাইনাস ৩৭.৮৩ ডলার, যা ইতিহাসের সর্বনিম্ন।

এদিকে করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে প্রাণ গেছে ৫ হাজার মানুষের। নতুন আক্রান্ত প্রায় ৭৪ হাজার। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১৯শ ৩৯।

করোনা ভাইরাসে রীতিমতো হিমশিম খাওয়া যুক্তরাষ্টে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ হাজার। যা গতকালের চেয়ে কিছুটা বেশি। এই নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪২ হাজার ৫১৪ জন। আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৯২ হাজার। যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে নিউইয়র্কে কমেছে মৃত্যু ও সংক্রমণ। নতুন মৃত্যু ৬৩১ জন। নতুন সংক্রমিতের সংখ্যা ৪ হাজার। এখন পর্যন্ত রাজ্যটিতে মৃত্যুর হয়েছে কোভিড নাইন্টিনে ১৮ হাজার ৯২৯ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে আড়াই লাখ।

যুক্তরাষ্টে অভিবাসনে সাময়িক স্থগিতাদেশ ট্রাম্পের
ছবি ঃঃ নিউইয়র্কটাইমস

এই পরিস্থিতিতে নিউইয়র্কে জুন পর্যন্ত সব ধরণের অযৌক্তিক অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। নিউইয়র্কের গর্ভনর অ্যান্ডু কুমো করোনা ভাইরাস মহামারিতে চলাকালীন সময়ে প্রয়োজনীয় কর্মীদের ৫০ % বোনাস চেয়েছে। লকডাউন তুলে নেওয়ার জন্য যারা বিক্ষোভ করছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলেন, এই দেশে কাউকে বোঝাতে আপনার প্রতিবাদের দরকার নেই যে আমাদের কাজে ফিরে যেতে হবে এবং আমাদের অর্থনীতিতে যেতে হবে এবং আমাদের বাসা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। কেউ নেই?

এদিকে চলমান করোন ভাইরাস মহামারীজনিত কারণে ৮ মিলিয়নেরও বেশি রেস্তোরাঁ কর্মী চাকরিবিহীন হতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রে। জরিপে উঠে এসেছে এমন তথ্য।

ইউরোপে কমেছে মৃত্যুর সংখ্যা ও আক্রান্তের হার। লকডাউন শিথিল করার কথা ভাবছে অনেক দেশ। জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মের্কেল সোমবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের বড় বাজেটের মাধ্যমে করোনভাইরাস মহামারী থেকে ইউরোপের অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের জন্য এবং ইউরোপীয় কমিশনের মাধ্যমে যৌথ প্রদানের জন্য অর্থোপার্জনের জন্য প্রস্তুতির ইঙ্গিত দিয়েছেন।

করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা কমেছে যুক্তরাজ্য। গত ২৪ ঘন্টায় ৪৪৯ জনের মৃত্যু হয়েছে, নতুন আক্রান্ত সাড়ে ৪ হাজার। এই নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৬ হাজার ৫০৯ জনে। আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ লাখ ২৪ হাজার। এমন পরিস্থিতিতে লকডাউন শিথিল করার কথা ভাবছে না ব্রিটিশ সরকার। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন মনে করেন লকডাউন শিথিল হলে,দ্বিতীয় ধাপে আঘাত হানতে পারে ভাইরাস। দেশটিতে ১৪০,০০০ টির বেশি প্রতিষ্ঠান চাকরি ধরে রাখার সহায়তা চেয়ে আবেদন করেছে বলে জানান অর্থমন্ত্রী ঋষি সোনাক। আর ডাক্তার-নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী পিপিই তুরস্ক থেকে আনছে ব্রিটেন।

যুক্তরাষ্টে অভিবাসনে সাময়িক স্থগিতাদেশ ট্রাম্পের
এনএইচএস কর্মীদের ধন্যবাদ জানানে হচ্ছে পুরো ব্রিটেনে ছবিঃসংগৃহিত

ইতালিতে মৃতের সংখ্যা কমেছে কিছুটা, আক্রান্তের সংখ্যাও কমেছে অনেকরা। তবে এখনই লকডাউন শিথিল করতে চায় না দেশটিতে। দেশটিতে নতুন মৃত্যু ৪৫৪ জন। এই নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৪ হাজার। মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৮১ হাজার। স্পেনেও কমেছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। স্প্যানিস সরকার লকডাউন বাড়িয়েছে তবে এ মাসের শেষদিক থেকে কিছুটা শিথিল করতে যাচ্ছে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মারা গেছেন ৩৯৯ জন।এই নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা ২০ হাজার ৮ শ’ ছাড়িয়েছে। ফ্রান্সে নতুন মৃত্যুর সাড়ে ৫ শ। চতুর্থ দেশ হিসেবে মোট প্রাণহানি ২০ হাজার ছাড়িয়েছে দেশটিতে। ইউরোপ-আমেরিকার পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্তের সংখ্যা এখন তুরস্কে। এখন পর্যন্ত ৯০ হাজার মানুষ সংক্রমিত করোনাশ, প্রাণ গেছে ২ হাজার ১৪০ জনের। ইরানের মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫ হাজার। আক্রান্ত ৮৩ হাজার। ভাইরাসটির উৎসস্থল চীনে কোনে আক্রান্ত ও মৃত্যু নেই গত ২৪ ঘন্টায়।

এখন পর্যন্ত করোনায় বিশ্বজুড়ে প্রাণ গেছে ১ লাখ ৭০ এর বেশি মানুষের, আক্রান্ত ২৪ লাখ ৮১ হাজার অতিক্রম করেছে। বিশ্বের সব অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close