আন্তর্জাতিকব্রেকিং নিউজস্বাস্থ্য

যুক্তরাজ্যে ৭৮৬ জনের মৃত্যু, বরিস জনসন আইসিইউতে

আজ-কাল,অনলাইন ডেস্ক ;অদৃশ্য করোনা ভাইরাসে নাকাল পুরো বিশ্ব। গত সপ্তাহ ধরে মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ছ যুক্তরাজ্যেও। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল।

করোনা ভাইরাসে নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় যুক্তরাজ্যে প্রাণ গেছে ৭৮৬ জনের। নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৬ শ মানুষ। এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে মহামারি করোনা ভাইরাসে মারা গেলেন ৬ হাজার ১৫৯ জন। ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হয়েছেন ৫৫ হাজার ব্রিটিশ।

এদিকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে। ২৭ মার্চ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন বরিস জনসন, এরপর নিজের বাসায় সেলফ আইসোলেশনে ছিলেন তিনি। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত পরশু তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে বর্তমানে তার অবস্থা আরো অবনতি হওয়ায় নিবিড় পর্যবেক্ষণ আইসিইউতে নেওয়া হয়।

আর এই সময়ে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব। করোনা নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলন বরিস জনসনকে একজন যোদ্ধা অ্যাখা দিয়ে ডমিনিক রাব বলেছেন, ‘ তিনি শুধু প্রধাবমন্ত্রী নন,তিনি কেবল আমাদের বসই নন,তিনি আমাদের সহকর্মী এবং বন্ধু । আমি আত্মবিশ্বাসী তিনি সুস্থ হয়ে উঠবেন।’
এদিকে সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন বরিস জনসনের সুস্থতা কামনা করে বলেছেন, ‘ আমরা সকলেই বরিসের জন্য প্রার্থনা করছি। সে টেনিস কোর্টে ওপাশ থেকে লড়ছে এবং আমি নিশ্চিত সে এর মধ্য দিয়ে জিতে আসবে। ‘ আরেক সাবেক প্রধানমন্ত্রী গডন ব্রাউন দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘ আমি বরিসের জন্য দুঃখিত, তার মত নেতার নেতৃত্ব না থাকা খারাপ সময় এনে দিতে পারে।’

বরিস জনসনের পূর্বসূরি প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে মনে করেন প্রধানমন্ত্রীর অনুপস্থিতিতে করোনা মোকাবেলা সম্ভব। তিনি বলেন, ‘ আমাদের সরকারের মন্ত্রীসভা আছে, যা এই সংকট মোকাবেলায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

বরিস জনসনের সুস্থতা কামনা করেছেন বিশ্ব নেতারাও। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, অষ্টেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনরা পাশে দাড়িয়েছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close