আন্তর্জাতিক

মাস্ক পড়ে মজা দিতে চান না ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

বৈশ্বিক মহামারী নভেল করোনা ভাইরাসে কোণঠাসা সারা বিশ্ব বাসী। সবারই একটা চাওয়া আসা কবে পৃথিবী ফিরবে তার আপন রূপে। আর কত প্রাণ নিয়ে থামবে ঘাতক ভাইরাসটি।

কোভিড নাইন্টিনে সবচেয়ে বেশি নাজেহাল পরিস্থিতির শিকার যুক্তরাষ্ট্রে বেড়েই চলেছে বেকারত্বের মিছিল। বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, গত সপ্তাহে নতুন করে আরও ২.৪৩ মিলিয়ন মার্কিনী বেকার হয়েছেন। এই নিয়ে মোট বেকারত্বের সংখ্যা দাঁড়ালো যুক্তরাষ্ট্রে ৩৮.৬ মিলিয়ন। এই পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি মন্ত্রী মুনুচিন দ্বিতীয় প্রান্তিকে মার্কিন অর্থনৈতিক নীচে দেখছেন। চতুর্থ প্রান্তিকে উন্নতির আশা করছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার মার্কিন ট্রেজারি সেক্রেটারি স্টিভেন মানুচিন বলেন, আমেরিকার অর্থনীতি দ্বিতীয় প্রান্তিকে নীচে নেমে যাবে এবং তৃতীয় প্রান্তিক থেকে চতুর্থ ত্রৈমাসিক কার্যক্রমে বিশাল বৃদ্ধি সহ উন্নতি শুরু করবে। খবর রয়টার্সের

এদিকে করোনা ভাইরাসে ইউরোপে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হওয়া রাশিয়াকে সাহায্য পাঠিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। বৃহস্পতিবার মস্কোর মার্কিন দূতাবাস এক বিবৃতিতে জানায়, ৫০ টি ভেন্টিলেটরের একটি চালান করোনা ভাইরাসকে লড়াই করতে সহায়তা করার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মানবিক সহায়তা সরবরাহের প্রথম অংশ অবতরণ করেছে রাশিয়ায়। আরও ১৫০ টি ভেন্টিলেটর দেওয়া হবে আসছে সপ্তাহে। এই ২০০ টি ভেন্টিলেটর মূল্য ৫.৬ মিলিয়ন ডলার। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রকে চিকিৎসা সরঞ্জাম সহযোগিতা করে পুতিন প্রশাসন। খবর সিএনএনের

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মিশিগানের একটি কারখানা গিয়েছিলেন। সেখানে তৈরি করা করোনা আক্রান্ত রোগীর সেবার জন্য ভেন্টিলেটর পরিদর্শন করতে। হোয়াইট হাউস সহ কর্মকর্তা দের মাস্ক পড়তে অনুরোধ করেন ট্রাম্প। কিন্তু তিনি নিজে পড়েন না মাস্ক। এরজন্য সমালোচনার ঝড় বইছে তার উপর। তবে কী সত্যিই মাস্ক পড়েন না ডোনাল্ড ট্রাম্প? বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের দিলেন সেই তথ্য। ট্রাম্প বলেন, আমি এটা (মাস্ক) পড়েছি। তবে পেছনে দিক পরিদর্শন করতে। আমি সাংবাদিকদের সামনে পড়ে মজা দিতে চাই না।

কালো রঙ্গের একটি মাস্ক এসময় তার হাতে ছিল। এটি তার পছন্দ হয়েছে বলে জানান তিনি। ট্রাম্প বলেন, মাস্ক পড়ায় আমাকে ভালো দেখাচ্ছে। তবে ক্যামেরার সামনে এটা পড়িনি। আমি ধারণা করছি, এর ছবিও আপনারা তুলছেন। খবর সিবিএসনিউজ এর

ট্রাম্প এসময় বলেন, তিনি সব গীর্জা গুলো খুলে দিতে চান। তবে ডেমোক্র্যাট গর্ভনররা নাকি সম্মান করছেন না এতে। ট্রাম্প বলেন, আমি যা করতে চাই তার মধ্যে একটি হল গীর্জা গুলো উন্মুক্ত করা। ডেমোক্র্যাট গভর্নরদের দ্বারা গীর্জাগুলি শ্রদ্ধার সাথে আচরণ করা হচ্ছে না।আমি আমাদের গীর্জা উন্মুক্ত করতে চাই এবং আমরা খুব দৃঢ় সিদ্ধান্ত নিব।

প্রাণঘাতি ভাইরাসে বিপর্যস্ত পরিস্থিতির শিকার নিউইয়র্কের গর্ভনর অ্যান্ডু কুমো বলেছেন, তার রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে। হাসপাতালে এখন কিছুটা রোগী হ্রাস পেয়েছে। পর্বত পেরিয়েছেন বলে জানান তিনি।

ওয়ার্ল্ডোমিটার এর তথ্য অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৯৬ হাজার মানুষ। আক্রান্ত সংখ্যা ১৬ লাখ ছাড়িয়েছে। কোভিড নাইন্টিনে গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ১ হাজার ৪১৪ জন। নতুন করে হয়েছেন ২৮ হাজার মানুষ।

ইউরোপে মহামারী নভেল করোনা ভাইরাসে মৃত্যুর দিকে শীর্ষে থাকা ব্রিটেন মাত্র ২০ মিনিটে করোনা ভাইরাসে ফলাফল জানা যাবে ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক জানিয়েছেন নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্তের জন্য সোয়াব টেষ্ট শুরু করা হচ্ছে। যার ফলে ২০ মিনিটে করোনা ভাইরাসে ফলাফল জানা যাবে। নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে ম্যাট হ্যানকক এসময় জানান, যুক্তরাজ্যে ৫ শতাংশ অ্যান্টিবডি পরিক্ষায় পজিটিভ হচ্ছে। যুক্তরাজ্য সরকারের এক সমীক্ষা বিশ্লেষণ তুলে ধরেন তিনি বলেন, লন্ডনে ১৭ শতাংশ অ্যান্টিবডি পরিক্ষা কারী পজিটিভ হয়েছেন। সিএনএন

ব্রিটিনে করোনা ভাইরাসে নতুন করে মারা গেছেন ৩৩৮ জন, এই নিয়ে মৃতের সংখ্যা ছাড়ালো ৩৬ হাজার। আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৫০ হাজার।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে পরিস্থিতিতে ক্রমশ নাজেহাল হচ্ছে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে প্রাণহানি হয়েছে ১ হাজার ১৮৮ জন। এই নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২০ হাজার৷ নতুন করে আক্রান্ত ১৭ হাজার, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ১০ হাজার।

সারা বিশ্বে এখন পর্যন্ত মহামারী নভেল করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন ৩ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ লাখ ১০ হাজার। সুস্থ হয়েছেন ২৯ লাখ ৯২ হাজার৷




মাস্ক পড়ে মজা দিতে চান না ট্রাম্প

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close