বাংলাদেশবুক রিভিউ

বুক রিভিউ বইয়ের নাম “মেঘ বলেছে যাব যাব”|

মেঘ বলেছে যাব যাব।

লেখকঃ- হুমায়ুন আহমেদ

বইটি মূলত মধ্যবিত্ত পরিবারের দৈনন্দিন বিভিন্ন দিক এবং কঠিন বাস্তবতা বলা যায়। বইটির মূল চরিত্র হাসান নামক একজন বেকার যুবক।হাসান এর দুই ভাই তারেক,রকিব,বোন লায়লা,ভাবি রীনা,আর মা বাবা নিয়ে মোটামুটি হাস্যোজ্জল একটি পরিবার এর ছবিই বইয়ের শুরুতে চিত্রিত হয়। হাসানের সাথে তিতলির ভালোবাসার দিকটি বইয়ের প্রথমে পরিলক্ষিত হয়। তিতলির পরিবারের মাধ্যমেই লেখক মধ্যবিত্ত পরিবারের একটি স্বরূপ তুলে ধরেছেন।
তবে বাস্তবতার সবচেয়ে কঠিনতম দিকটিও যেন দেখা মিলবে এই বইটিতে।তিতলির বিয়ে শওকতের সাথে হয়ে যাওয়ার মাধ্যমে, রীনার সপ্ন ও হাস্যোজ্জল সেই সংসার ধংসের মাধ্যমে কিংবা হিশামুদ্দিন সাহেবের বলা জীবনের বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে!!
বইটির শেষ পাতাটি কিন্তু আমাদের এই কঠিন বাস্তবতার কথাটিকেই স্মরণ করিয়ে দেয়!

শুধুমাত্র একটা মধ্যবিত্ত পরিবারের অভাব,অনটন আর ব্যর্থতার কাহিনী নয়, এখানে বন্ধুত্ব, ভালোবাসা আরো অনেক নাম না জানা সম্পর্ক নিয়ে এই গল্প। হাসান নামক বেকার যুবকের টাকার অভাব হতে পারে কিন্তু সে নিঃস্বার্থ ও অকৃত্রিম ভালোবাসা দিয়ে সবার মনের উচ্চ আসনে স্থান করে নিয়েছিলো। অনেক জটিলতা দিয়ে গল্পের শুরু আর সব জটিলতার অবসান ঘটিয়ে গল্পের শেষ… মন খারাপ করিয়ে দেয়ার মতো অবস্থা!আর আমার মতো যারা অতিরিক্ত ইমোশনাল তাদের চোখের কোণে একটু জলও জমে যাবে।

আমি সবসময়ই এসব গল্পগুলো পড়ার সময় একেক চরিত্রকে একেকভাবে নিজের মধ্য দেখার চেস্টা করি।গল্পটা পড়ার সময় হাসান নামের চরিত্রকে নিজের মাধ্যমে দেখেছি,,এবং প্রতিটা লাইন পড়তে পড়তে কেদেছি!

  • তিতলী মেয়েটার আরেকজনের কাছে চলে যাওয়া!!
  • প্রতিটা পদক্ষেপে কষ্ট
  • এবং পরিশেষে,,মৃত্যু!!

রিভিউ লিখেছেন: মিজু মোহাইমিন

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close