আন্তর্জাতিক

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ১ কোটি ছাড়িয়েছে, মৃত্যুর সংখ্যা ৫ লাখ অতিক্রম করেছে

অনলাইন প্রতিবেদক : প্রাণঘাতি ছোঁয়াচে ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ছুঁয়েছে। মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ৫ লাখ। আগামী ৩০ জুন চীনে করোনাভাইরাস ধরা পড়ার ৬ মাস পূর্ণ হবে। এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়ায় প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের ও মৃত্যুর সংখ্যা।

গত বছর ডিসেম্বরের ৩১ শে তারিখ চীনের উহানে নিউমোনিয়া জাতীয় এক রোগের তথ্য নিশ্চিত করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চীনে ভাইরাসটি দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়তে থাকে। চীনা বিজ্ঞানীরা গবেষণায় জানতে পারে এটি সার্স-করোনাভাইরাস ধর্মী। ৩০ শে জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ১১ ই ফ্রেবুয়ারী ভাইরাসটির নাম কোভিড-১৯ দেওয়া হয়। সারা বিশ্বের ২১১ টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি। উহানে দেখা যাওয়া ভাইরাস প্রজাতিটি ‘এসএআরএস-সিওভি’ প্রজাতির সাথে ৭০ শতাংশ জিনগত মিল পাওয়া গেছে। তাই বিজ্ঞানীরা বলছেন, কোভিড-১৯ বন্য প্রাণী সাপ বা বাদুড় থেকে ছড়িয়েছে। তবে অনেকেই এই মতের বিরুদ্ধে আছেন।

মহামারী নভেল করোনাভাইরাসের সবচেয়ে বেশি ভয়াবহতা দেখেছে ইউরোপ-আমেরিকা মহাদেশে। বিশ্বে আক্রান্তের এক-চতুর্থাংশই যুক্তরাষ্ট্রের। দেশটিতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ লাখ ৯৬ হাজার এর বেশি। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ২৮ হাজার ১১২ জনের। যা দেশ হিসেবে বিশ্বে সর্বোচ্চ। করোনার কাছে রীতিমতো কোনঠাসা হয়েছে মার্কিনীরা। লকডাউনে বেকারের খাতায় নাম লিখিয়েছন ৪ কোটির বেশি মানুুষ। বড় ধরনের ক্ষতির মুখে দেশটির অর্থনীতি। কোভিড-১৯ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। করোনার বর্তমান হটস্পট ব্রাজিলে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ১৫ হাজার। প্রাণহানি হয়েছে ৫৭ হাজার ১০৩ জনের৷ আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় রাশিয়া। দেশটিতে ৬ লাখ ২৭ হাজার মানুষ আক্রান্ত। তবে মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটাই কম। দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। ৫ লাখ ২৯ হাজার আক্রান্ত নিয়ে বিশ্বে আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ দেশটি। মৃত্যুর মিছিল বেড়েই চলছে। ১৬ হাজার ১০৩ জনের প্রাণ গেছে ভারতে।

মহাদেশ হিসেবে করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত ইউরোপ। ৩ লাখ ১০ হাজার মানুষ আক্রান্ত ও ৪৩ হাজার ৫১৪ জন মারা গেছেন যুক্তরাজ্যে। যা বিশ্বে পঞ্চম সর্বোচ্চ ও ইউরোপে সর্বোচ্চ। স্পেনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯৫ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৩৪১ জনের। ইতালিতে করোনায় প্রাণ গেছে ৩৪ হাজার ৭১৬ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪০ হাজার মানুষের। ফ্রান্সে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬২ হাজার, মৃত্যু হয়েছে ২৯ হাজার ৭৭৮ জনের। ইউরোপের আরেক দেশ জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯৪ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ২৬ জনের।

এখন পর্যন্ত সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৮৭ হাজার ৩২০ জন। মৃত্যুর সংখ্যা ৫ লাখ ১ হাজার ৪১৯ জনে দাড়িয়েছে। সুস্থতার সংখ্যাও কম নয়। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫৪ লাখ ৬৬ হাজারের বেশি মানুষ।

সূত্র : ওয়ার্ল্ডোমিটার

Tags
Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close