আন্তর্জাতিক

পৃথিবীর ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ানক ট্যাঙ্ক লিকের ঘটনা ঘটেছে রাশিয়ায়।

সুহেলি রিপা, নিজস্ব প্রতিনিধি; নরস্লিক নামে শহরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া দুই নদী লাল হয়ে গেছে। রাশিয়ার এই দুই নদীর ছবি হঠাৎ আতঙ্ক ছড়িয়েছে বিশ্বজুড়ে। জ্বালানি তেলের ট্যাংক ফেটে রাশিয়ার সুমেরু অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে ২০ হাজার টন তেল। তাই নদীর রং এমন লাল হয়ে গিয়েছে।এতে ওই অঞ্চলে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

গত শুক্রবার এ ঘটনাটি ঘটলেও রাশিয়ার কর্মকর্তারা জানতে পেরেছেন দুইদিন পরে। এতে কর্মকর্তাদের ওপর ক্ষোভ জাড়লেন পুতিন। ঘটনা দ্রুত তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।প্রাথমিকভাবে শোনা গিয়েছিল, একটি গাড়ি পাওয়ায় প্ল্যান্টের স্টোরেজে গিয়ে ধাক্কা মারে। তারপর সেখান থেকেই নাকি তেল ছড়িয়েছে।কিন্তু সেই খবর সংস্থার কাছে পৌঁছোতে অনেকটাই দেরি হয়ে গিয়েছিল। ততক্ষণে ছড়িয়ে পড়ে তেল।

রাশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান পুতিনের কাছে খবর পৌঁছানোর আগেই ১ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা এই তেলে ঢেকে যায়। দূষণ এতটাই বেশি যে গুগল ম্যাপে এবং ইয়ান্ডেক্স ম্যাপের স্যাটেলাইট ইমেজেও তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। পরিবেশবিদরা সতর্ক করছেন, ওই অঞ্চলে দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হতে পারে।বুধবার স্থানীয় গভর্নরের সঙ্গে কথা বলেন পাশাপাশি দ্রুত পদক্ষেপ না নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের তীব্র সমালোচনা ও করেন পুতিন। গভর্নরও বলেন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তিনি এই বিষয়ে খবর পেয়েছেন। দু’‌সপ্তাহের মধ্যে পরিস্থিতি সামলানোর কথাও তিনি জানান। পরে, বুধবারই প্রশাসন জানায়, এই সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হবে। কেউ কেউ বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে কোনও সংস্থার ট্যাঙ্ক লিকের যত ঘটনা আছে, তার মধ্যে এটি সবচেয়ে ভয়ানক।

পরিস্থিতি সামলাতে এখন কী করা উচিত, তাই বুঝতে পারছে না প্রশাসন। স্থানীয় গভর্নর বলেছেন, এই তেল এখন জ্বালিয়ে দেওয়া ছাড়া উপায় নেই। কিন্তু আগুন জ্বালালে বিপুল দূষণের সম্ভাবনা রয়েছে।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close