বাংলাদেশ

দীর্ঘদিন ধরে কর্মহীন আর্থিক সংকটে ঢাকা ছাড়ছেন অনেকে

মহামারী কোভিড -১৯ আয় হারিয়েছে রাজধানী ঢাকার লাখ লাখ মানুষ। বাধ্য হয়ে তাই গ্রাম থেকে রোজগারের আসায় ঢাকায় আসা এসব মানুষ ছাড়ছে স্বপ্নের শহর। করোনাভাইরাসের প্রভাবে দেশের গার্মেন্টস শিল্পে জড়িত পোশাক শ্রমিক, নির্মাণ শ্রমিক, গৃহ শ্রমিক, বিভিন্ন হোটেলে রেষ্টুরেন্টে থাকা মানুষ গুলো চাকরি হারিয়েছে। করোনার কারণে সবকিছু বন্ধ থাকায় আয়-রোজগার নেই ভাসমান এসব মানুষের।

কালাম মিয়া নামের এক ব্যক্তি জানালেন করোনার কারণে কাজকর্ম কিছুই নেই এজন্য গ্রামে যাচ্ছেন তিনি। ১৩ বছর থেকে ঢাকায় বসবাস করা কালাম জানালেন, গাড়িচালক তার পেশা। তিনি কখনো মাইক্রো চালিয়েছেন, কখনো উবার। তবে গত এপ্রিল থেকে কাজ নেই তার। তবে দিনশেষে তো খেতে হবে। জমানো কিছু টাকা দিয়ে জুনের মাঝামাঝি পর্যন্ত চলছিল। তবে এখন তিনি শূন্য । আর তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে গ্রামের বাড়ি ফিরে যাবেন । যদি কোনোদিন আবারো স্বাভাবিক হয় রাজধানীর পরিস্থিতি তবে ইচ্ছে আছে স্বপ্নের শহরে ফেরার।

সরকার ও বিভিন্ন সংগঠন থেকে অনেকে হয়তো পাচ্ছেন দু বেলা দু মুঠো খাবার। তবে ঘরভাড়া কে দিবে? গত তিন মাস থেকে রাজধানী জুড়ে এই সমস্যা ভুগছে এসব মানুষ। ফলে বাধ্য হয়ে ঢাকা ছাড়ছে নিম্নবিত্ত মানুষজন।

শুধু কী নিম্নবিত্ত মানুষই এই সমস্যায় ভুগছেন? মধ্যবিত্ত পরিবার, ব্যাচলের, ছাত্র-শিক্ষক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এই সমস্যায় জর্জরিত। গত তিন মাস থেকে আয় বলতেই নেই এই মানুষগুলোর। তাই গ্রামমুখি এসব মানুষগুলোও। কাজ না থাকায় সঞ্চয় থাকা কিছু টাকা দিয়ে কোনোরকম দিন কাটিয়েছে শহরের এই শ্রেণীর লোকেরা। এভাবে আরো কতদিন চলে? তাই বিভিন্ন পেশার জড়িত থাকা মানুষজন প্রতিদিনই ঢাকা ছেড়ে গ্রামে যাচ্ছেন। অনেকে আবার একটু কম ঘর ভাড়া বাসা উঠছেন । কেউ কেউ ঘর ভাড়া দিচ্ছেন, আবার গ্রামেও চলে যাচ্ছেন । কারণ ফের ঢাকা আসলে জটিল হবে বাসা খুজে পাওয়া।

বেসরকারি একটি সংস্থায় অফিস সহকারী হিসেবে কাজ করা গাইবান্ধার হাসান জানালেন, থাকতেন ছোট্ট একটা বাসায়। ভাড়া ছিল ১২ হাজার। তার স্ত্রী কাজ করতো এক বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে। স্বামী স্ত্রী মিলে আয় করায় ভালোই চলতো তাদের সংসার। তবে করোনা বদলে দিয়েছে সবকিছু। স্ত্রী হারিয়েছেন কাজ এতে বাসা ভাড়া দিতে পারছেন না তিনি । ফলে এখন বাসা ছেড়ে রাজধানী ৩ শ ফিট এলাকায় ঢেউ টিন আড়ালেই থাকছেন এই দম্পতি।

এসব মানুষগুলোর চাওয়া একটা দূর হয়ে যাক অদৃশ্য করোনাভাইরাস। আবার ফিরে আসুক স্বাভাবিক জীবন। মানুষ ফিরুক আপন রূপে। এই আশা আছে লাখ লাখ মানুষ।

Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close