বাংলাদেশ

ছাত্রলীগের এই কাজগুলো আপনারা দেখেও দেখছেন না,শুনেও শুনছেন না

সারাদেশে হ্যান্ড স্যানিটাইজার আর মাস্কের দাম যখন আকাশ ছোঁয়া তখন ছেলেগুলো হ্যান্ড স্যানিটাইজার সারাদেশে,প্রতিটা জেলায়-উপজেলায়-ওয়ার্ডে বিনামূল্যে বিতরণ করল।

সারাদেশ লকডাউন। প্রথম লাথিটা দিনমজুরের পেটে এসে পড়লো।
ছেলেগুলো বড় ভাই,নেতা, নিজেদের পরিবার, জমানো টাকা থেকে নিয়ে নেমে পড়লো। তাও সমগ্র দেশে,থানায়,উপজেলায়।

কিছুদিন না যেতেই অভাবের চাপটা মধ্যবিত্তের উপর আসলো। ছেলেগুলো সরকারের সাথে সাথে নিজেদের হটলাইন থেকে মধ্যবিত্তদের ঘরে খাবার পৌঁছিয়ে দিচ্ছে। তাও প্রায় সব জেলায়৷

লকডাউনে সবচেয়ে বড় ধাক্কটা পড়তেছিলো কৃষিতে। ধান কাঁটার লোক নাই,শ্রমিকের বেতন বেশি। সময়মত ধান কাটা না হলে ধান ঝড়ে যাবে। আবার বৃষ্টি হলে পানিতে তলিয়ে যাবে। ঠিক তখনই ছেলেগুলো নেমে পরল কাঁচি হাতে। এখনো পর্যন্ত দেশের ৩৫টা স্থানে ধান কেঁটে দিয়েছে তারা,চলমান থাকবে কৃষকের ধান ঘরে না উঠা পর্যন্ত।

দেশের ৪৫টা জেলায় ৩০০+ স্থানে ফ্রি সবজী বিতরণ করেছে তারা।

হাজার হাজার দিনমজুরকে প্রতিদিন রান্না করে খাওয়াচ্ছে তারা।

দেশের দুইটি স্থানে দুইজন ব্যক্তি করোনা সন্দেহ মৃত বলে তার আত্মীয় স্বজন কেউ পাশে আসেনি। লাশ দাফন,কাফন সব করেছে ঐ ছেলেগুলো।
অন্যান্য সংগঠন করেছে কিন্তু সারাদেশ ব্যাপি, প্রতিটা অঞ্চলে করতে পারেনি অন্য কেউ।
দেখেন, ছেলেগুলো দূরের কেউ না। আপনাদের এলাকার,আপনাদের সমাজের,আপনাদের ইউনিয়নের,আপনাদের উপজেলার। তাদের প্রশংসা করলে,তাদের কাজে প্রচার করলে ভালোটা আপনার সমাজের আপনার এলাকার আপনার দেশের।

ছাত্রলীগের এই ছেলেগুলোর কাজগুলো আপনারা দেখেও দেখছেন না,শুনেও শুনছেন না৷ জেনেও জানছেন না৷ সুযোগ খুঁজছেন কিভাবে ট্রল করা যায়,ভুল ধরা যায় এসবের৷ কিন্তু দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে যারা দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করছে দেশের নাগরিক হিসেবে,দেশের শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে তাদের প্রশংসা করা আপনার নাগরিক দায়িত্ব। ছাত্রলীগ হোক বা যেকোনো ছাত্রসংগঠন বা রাজনৈতিক বা সামাজিক সংগঠন হোক দেশের ক্রান্তিলগ্নে যারা কাজ করবে তাদের প্রশংসা করুন। ছোট করে একটা ধন্যবাদ দিন।
লাভটা আপনারই,আপনার দেশের।

ধন্যবাদ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

(সংগ্রহীত)

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close