আন্তর্জাতিক

চীনে প্লেগ, সংক্রমণের জন্য সর্তকতা জারি

প্রাণঘাতী বিউবনিক প্লেগ রোগ ছড়াতে শুরু করেছে চীনের উত্তরাঞ্চলীয় শহরে জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে। স্বায়ত্তশাসিত ইনার মঙ্গোলিয়া অঞ্চলের বায়ানুর শহরে প্লেগ প্রতিরোধে তৃতীয় মাত্রার সতর্কতা জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পিপলস ডেইলি। গত শনিবার বায়ানুরের একটি হাসপাতালে বিউবনিক প্লেগ রোগী শনাক্তের পরপরই এ সিদ্ধান্ত নেয় চীন সরকার। চলতি বছরের শেষ নাগাদ এ সতর্কতা থাকবে বলে জানিয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। বায়ানুর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘বর্তমানে এই শহরের মানুষের মধ্যে প্লেগ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে সবার আত্মসুরক্ষা ব্যবস্থা উন্নত করতে হবে এবং সতর্ক থাকতে হবে। শরীরে যেকোনও ধরনের অস্বাভাবিক উপসর্গ দেখা গেলে তা সঙ্গে সঙ্গে কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।’

১ জুলাই চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা শিনহুয়া জানিয়েছিল, দেশটির পশ্চিম মঙ্গোলিয়ার খোভদ প্রদেশে দুইজন বিউবোনিক প্লেগে আক্রান্ত হয়েছেন। ল্যাব টেস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয় ।

প্লেগে আক্রান্ত দুই ভাই মারমোটের অর্থাৎ ইঁদুরজাতীয় প্রাণী মাংস খেয়েছিলেন। এ কারণে মানুষজনকে এ প্রাণী শিকার থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসা ১৪৬ জনকে চিহ্নিত করে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

প্লেগ রোগ তিনটি, এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে বিউবনিক প্লেগ। ব্যাকটেরিয়াজনিত এই রোগ ইঁদুরজাতীয় প্রাণীদের শরীরে থাকা পোকা বা আশপাশে বসবাসকারী মাছির মাধ্যমেও ছড়াতে পারে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, উপযুক্ত চিকিৎসা না পেলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই রোগটি প্রাপ্তবয়স্ক একজন রোগীকে মেরে ফেলতে পারে।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ নভেল করোনা ভাইরাস। ইতোমধ্যেই পাঁচ লক্ষাধিক মানুষের প্রাণ কেড়েছে এই ভাইরাস। এর প্রকোপ শেষ না হতেই গত সপ্তাহে শূকরের শরীরে ফ্লু ভাইরাস পাওয়ার কথা জানায় চীন। এটিও মানুষের মধ্যে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন গবেষকরা। এর মধ্যেই সামনে এলো বিউবনিক প্লেগের খবর।

Show More

Related Articles

Back to top button
Close
Close