আন্তর্জাতিক

করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়ালো

অনলাইন ডেস্ক ঃ

অদৃশ্য করোনা ভাইরাসে নাকাল পুরো বিশ্ব। এখন পর্যন্ত কোনো ভাইরাস নির্মূলের ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়া প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। করোনা ভাইরাসের কাছে রীতিমতো কোনঠাসা একবিংশ শতাব্দীর বিজ্ঞানের এত উন্নত চিকিৎসা পদ্ধতি।

এদিকে কোনো কোনো করোনা থেকে ভালো হওয়া ব্যক্তিকে কর্মক্ষেত্রে না যাওয়ার আহবান জানিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওই ব্যক্তিরা করোনা ছড়াতে পারে বলে ডব্লিউএইচও বলছে দেশগুলোকে সতর্ক থাকতে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা শনিবার বলেছে যে কোভিড নাইন্টিন থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে এবং অ্যান্টিবডি রয়েছে এমন লোকেরা দ্বিতীয় বার করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে বলে এখনও কোনও প্রমাণ নেই।

একটি বৈজ্ঞানিক সংক্ষেপে, জাতিসংঘের সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বিভিন্ন দেশের সরকার গুলোকে সতর্কতা হিসাবে সংক্রামিত মানুষগুলিকে “অনাক্রম্যতা পাসপোর্ট” বা “ঝুঁকিমুক্ত প্রশংসাপত্র” দেওয়ার বিরুদ্ধে সতর্ক করেছিল। অনেকে এটা পেলে তাদের শরীরে অ্যান্টি-বডি তৈরি হয়েছে বলে অবাধে চলাফেরা করবে তাই এটি না দিতে আহবান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। চিলি গত সপ্তাহে বলেছিল যে তারা অসুস্থতা থেকে সুস্থ হয়েছেন তাদের “স্বাস্থ্য পাসপোর্ট” প্রদান শুরু করবে। তাই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই সতর্কতা সংকেত দেয়।

পরীক্ষা, ওষুধ এবং ভ্যাকসিন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই উদ্দোগ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে যে অংশ নেবে না।

এদিকে মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপার রণতরী থিওডোর রুজভেল্টের উপরে করোনভাইরাস প্রাদুর্ভাবের বিষয়ে নৌবাহিনীর প্রাথমিক তদন্তের “পুঙ্খানুপুঙ্খ পর্যালোচনা” করবেন এবং তারপরে পরবর্তী পদক্ষেপগুলি নিয়ে আলোচনা করার জন্য নেভির নেতৃত্বের সাথে সাক্ষাত করবেন, শুক্রবার পেন্টাগন জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগন বলেছে, ভারপ্রাপ্ত নৌবাহিনী সেক্রেটারি এবং নৌ অভিযানের প্রধানের কাছ থেকে এস্পার একটি মৌখিক আপডেট পেয়েছেন। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, সেক্রেটারি সম্পূর্ণ তদন্তের লিখিত অনুলিপি পাওয়ার পরে, তিনি প্রতিবেদনটি পুরোপুরি পর্যালোচনা করতে চান এবং পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনার জন্য নৌবাহিনী নেতৃত্বের সাথে আবার সাক্ষাত করবেন।

কোভিড নাইন্টিনে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়ে গেছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ভাইরাসে সারা বিশ্বে প্রাণ গেছে ৬ হাজার মানুষের। নতুন আক্রান্ত ৯০ হাজার। যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণ গেছে ২ হাজার ৬৫ জনের। নতুন আক্রান্ত ৩৫ হাজার। এই নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৪ হাজারে । আক্রান্তের সংখ্যা ৯ লাখ ৬০ এর বেশি মানুষ।

নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য নতুন করে প্রাণ গেছে ৬১৭ জনের। এই নিয়ে মোট মৃত্যু সংখ্যা দাঁড়ালো রাজ্যটিতে ২১ হাজার ৯০৮ জনে। আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৮৮ হাজার । এদিকে নিউইয়র্কের গর্ভনর অ্যান্ডু কুমো রোগির সংখ্যা ক্রমশ বলে জানান। তিনি বলেন, ভাইরাস জনিত কারণে হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের সংখ্যা প্রতিদিন কমে যাচ্ছে। এটি ২১ দিন আগের সমান স্তরে পৌঁছেছে।

এদিকে গত ২৪ ঘন্টায় ব্রিটেনে মারা গেছেন আরও ৮১৩ জন। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৫ হাজার। এই নিয়ে দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২০ হাজার ৩১৯ জনে। করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪৮ হাজার ব্রিটিশ।

শনিবার ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল জনগণকে বাড়িতে থাকার জন্য সরকারের বার্তাকে পুনরাবৃত্তি করেছিলেন কারণ ব্রিটেন করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে লড়াই করছে এবং দেশকে এখনও বিপদমুক্ত নয় বলে জনগণকে নিয়ম মেনে চলতে আহ্বান জানিয়েছে। প্যাটেল সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, “আমাদের নির্দেশাবলী পরিষ্কার রয়ে গেছে, লোকেরা ঘরে বসে থাকতে হবে, এনএইচএস (জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা) রক্ষা করা এবং জীবন বাঁচাতে হবে।”

ব্রিটেনের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের মেডিকেল ডিরেক্টর স্টিফেন পোভিস শনিবার বলেছেন, করোনভাইরাসে ব্রিটেনে ২০ হাজার মৃত্যুর মাইলফলক ভঙ্গ করা জাতির জন্য অত্যন্ত দুঃখের দিন।

করোনা ভাইরাসে ইউরোপে সবচেয়ে বেশি বিপর্যয়ে পড়া ইতালিতে ক্রমেই কমছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৪১৫ জন। যা ইতালিতে ১৭ মার্চের পর সর্বনিম্ন মৃত্যু একদিনে। নতুন আক্রান্ত ২ হাজার ৩৫৭ জন, যা ৫৪ দিনের মধ্যে সবচেয়ে কম। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন ২৬ হাজার ৩৮৪ জন। আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯৫ হাজার। এদিকে আটলান্টিক মহাসাগরে ইতালির একটি নৌ-জাহাজে ১৪৮ সদস্যের মাঝে করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে।

করোনার আরেক মৃত্যুপুরি স্পেনেও তুলনামূলক ভাবে কমছে মৃত্যুর মিছিল। গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৩৭৮ জন। এই নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ২২ হাজার ৯০২ জনে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ২৩ হাজার। ফ্রান্সেও কমছে মৃত্যুর হার। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ৩৬৯ জনের। নতুন আক্রান্ত ১৬ শ মানুষ। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে প্রাণ গেছে ২২ হাজার ৬১৪ জনের। মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৬১ হাজার।

সংক্রমনের সংখ্যা বেশি হওয়া সত্ত্বেও সফলতা দেখিয়েছে ইউরোপের দেশ জার্মানি। এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৫৫ হাজার এর মতো মানুষ আক্রান্ত হলেও মারা গেছেন সাড়ে ৫ হাজার এর মতো মানুষ। তুরস্কে নতুন মৃত্যু ১০৭ জনের। মোট এই সংখ্যা ২ হাজার ৭০৬ জন, আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭ হাজার। ইরানে কমছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা। নতুন করে মারা গেছেন ৭৬ জন। মোট মৃত্যু ৫ হাজার ৬৫০, মোট আক্রান্ত ৮৯ হাজার। বেলজিয়ামে কোভিড নাইন্টিনে নতুন করে প্রাণ গেছে ২৩৮ জনের। মোট এই সংখ্যা ৬ হাজার ৯১৭ জন, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫ হাজার।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য মতে সারা বিশ্ব জুড়ে নোভেল করোনা ভাইরাসে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ লাখ ৩ হাজার মানুষ । আক্রান্তের সংখ্যা ২৯ লাখ ৩২ হাজার।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close