রাজনীতি

একজন রাজনীতি করা ছেলের ত্যাগ নিয়ে মহসিন কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মিছবাহ এর লেখা।

“একজন পলিটিক্স করা ছেলে।”

একটা পলিটিক্যাল ছেলের চেহারা কখনোই সুন্দর হয় না।
সুন্দর থাকলেও কয়েক বছর পর সে সুন্দরে আর তেমন গ্লামার থাকে না। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে রং টা পেটা ও তামাটে
কালার ধারন করে। কারন যোগ্যতার পরিচয়টা এদের পিঁচ
ঢালা রাজপথেই যে দিতে হয়।
একটা পলিটিক্যাল ছেলের কন্ঠ কখনো সুরেলা হয় না, হয়
না হাফ লেডিস মার্কা। এদের কন্ঠ হয় ভরাট। কেননা
কেনকেনানি বা মেনমেনানির অভ্যাস এদের
পার্সোনালিটিতে নাই।
একটা পলিটিক্যাল ছেলের পরনে আপনি কখনোই ইয়ো
ইয়ো টাইফস পোশাক দেখবেন না। ফ্যামেলি ফাংশন
গুলোতে গিয়ে হৈ হুললোড় মেতে উঠা, গানের তালে
তালে লাফালাফি, পার্টি স্প্রে ছড়ানো ছেলেটা, খোঁজ নিয়ে
দেখেন এদের কেউই পলিটিক্স করে না। কারন একটা
পলিটিক্যাল ছেলের রুচিবোধ অন্যদের তুলনায় অনেকটা
উন্নত ও স্ট্রং হয়।
একটা পলিটিক্যাল ছেলে কখনো ছেঁচ্ছর টাইপের হয় না।
পকেটে টাকা হয়ত এদের কম থাকতে পারে। কিন্তু এরা
একি টেবিলে কখনো দুইটা বিল হতে দেয়া না। প্রচন্ড
ক্ষিদে থাকা সত্বেও সামর্থ্যে না থাকলে এরা একজন
অন্যজনকে ফেলে কখনো খায় না।একটা পলিটিক্যাল ছেলে কখনোই লুজ-কেরেকটারের হয়
না। কারন এদের কাছে নারী থেকেও এদের দেশ ও দশ বেশি প্রিয় হয়ে ওঠে। দিনটা এদের ছোট ভাই/বড় ভাই/সহযোদ্ধা/বন্ধু/লবিং ঘিরেই থাকে বলে এদের জীবনে প্রেম বলতে তেমন একটা কিছু থাকে না এবং খুব সহজে এরা প্রেমেও
পড়ে না। অবশ্য এর অন্য এবং সলিট একটা কারণ হল
মেয়েরা একটু ঢ়ংগি এবং সেল্প-ইগোটিক হয় আর
পলিটিক্যাল ছেলে গুলো এই ব্যাপারে একটু বেশিই
স্ট্রেইট-ফরোয়ার্ড়। আর প্রেম জিনিসটা সারাক্ষন পিঁছন
পিঁছন ঘুরে ঘুরেই যে পাওয়া যায় এমনটা এদের ক্যারেক্টারে মানায় না।প্রেম ভালোবাসা সবার জীবনেই আসতে পারে। এরাও তার ব্যাতিক্রম নয়, তবে এরা এলাকার সারাদিন স্টাইল নিয়ে মেতে থাকা ইয়ো ইয়ো, ফচকা, ফালতু ছেলেদের মত ৫/৭ টা প্রেম করে মেয়েদের ঠকায় না।কাওকে ভালোবাসলে এরা ভালোবাসার মতই ভালোবাসে এবং ফ্যামিলী, আত্তীয় স্বজন সবার মন জয় করে তাকেই জীবন সঙ্গী হিসাবে পাওয়ার স্বপ্ন দেখতে থাকে।

তাই পলিটিক্স এবং পলিটিক্যাল ছেলে গুলোকে পরখ না করে বিচার করবেন না।
কারন বইয়ের মোড়ক দেখে বইটির খারাপ ভালো নির্নয় করাটা নির্বুদ্ধিতা।

Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close