খেলার খবরব্রেকিং নিউজ

অসহায় মানুষদের পাশে রুবেল হোসেন, হয়েছে অদ্ভুত অভিজ্ঞতা!

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে পুরো বিশ্ব। কয়েকটা দেশ ইতিমধ্যেই তাদের দেশে লকডাউন জারি করে দিয়েছে। অন্যান্য দেশের মতো করোনা আঘাত হেনেছে বাংলাদেশেও। তাই তো, সব ধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি দেশের সব ধরণের খেলাধুলা বন্ধ ঘোষণা করেছে বোর্ডগুলো।

দেশের এহেন পরিস্থিতিতে অসহায় দুঃস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন দেশের ক্রিকেটাররা। নিজেদের বেতনের ৫০ শতাংশ টাকা তারা ইতিমধ্যেই দান করেছেন বোর্ডের তহবিলে। এখানেই থেমে থাকেন নি তারা। নিজেদের ব্যক্তিগত উদ্যেগেও অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন তারা। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর ব্যাপারে কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন। সেখানে তিনি লিখেন,

‘এখন সময় আতংকিত হবার নয়, এখন সময় নিজেকে সুরক্ষিত রেখে আশেপাশের মানুষ-জনকে সাহায্য করার। আসুন না, এই দুর্যোগে আমরা যে যেভাবে পারি, সেভাবে অসহায় মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেই।’

স্ট্যাটাস দিয়েই ঘরে বসে থাকেন নি রুবেল। বুধবার সন্ধ্যায় মিরপুর এলাকায় দুস্থ-অসহায়দের সাহায্যার্থে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি করে ডাল, আলু, পেয়াজ, লবন, তেল ও সাবান নিয়ে প্যাকেট করে সেগুলো বিলি করেছেন তিনি। এই ব্যাপারে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলতে এসে রুবেল বলেন,

‘২১৫ প্যাকেট বিতরণ করেছি কাল। প্রতিটি প্যাকেটে ছিল ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, আলু, পেঁয়াজ, সাবান, লবণ, তেল ইত্যাদি। সামগ্রিক বিচারে এটা কিছুই নয়। তবুও কিছু মানুষের উপকার তো হলো। আমাদের দেশে যারা বিত্তবান আছে তারা যদি একটু এগিয়ে আসেন, অনেক ভালো হয়। যা বুঝছি সামনের সময়টা খুব কঠিন। অনেক মানুষ রিকশা চালায়, অনেক ভিক্ষুক আছে, যারা এই সময়ে ভীষণ অসহায়। এদের সহায়তা করতে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসতে হবে।’

অসহায়দের মধ্যে খাবার বিতরণ করতে গিয়ে বেশ বিচিত্র অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছেন জাতীয় দলের এই পেসার। একটি ভবনের মালিকও নাকি এই খাবার সংগ্রহ করতে এসেছিলেন। রুবেল বলেন, ‘কাল একটা জিনিস দেখে খুব অবাক হয়েছি। একজন ব্যক্তি এসেছেন প্যাকেট নিতে, পরে শুনি তিনি একটি ভবনের মালিক!’

Tags
Show More

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close